Wednesday, May 25, 2016

এসএসসি এক্সামের রেজাল্ট

আমার আজকের এই লেখাটি লেখার পেছনের নেপথ্য হচ্ছে এসএসসি রেজাল্ট পরবর্তী কিছু ঘটনা নিয়ে ।

আমরা সবাই জানি কিছুদিন আগে এসএসসি পরিক্ষার  রেজাল্ট দিয়েছে । কেউ কেউ আশানুরূপ ফলাফল করেছে আবার কেউ কেউ করতে পারে নি  ।  প্রথমেই যারা ভালো করেছে তাদের শুভকামনা , আর যারা ভালো করতে পারোনি 
তাদের অভিনন্দন ।

কারো হয়ত জিপিএ -৫ পাওয়ার কথা ছিলো ,পাও নি ; অথবা কারো হয়ত গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়ার কথা ছিলো , পাও নি । আমরা মানুষ । স্বভাবতই আমরা যেটা এক্সপেক্ট করি সেটা না পেলে মন খারাপ করি । প্রতি বছরেই আমরা দেখতে পাই রেজাল্ট প্রকাশিত হবার কিছুদিনের মধ্যে কিছু ছেলে-মেয়ে সুইসাইড করে  ।  একটা ভালো 
রেজাল্ট অবশ্যই দরকার আছে আমাদের জন্য সামনে ভালো একটা কলেজে ভর্তি হবার জন্য । তার বেশি কিছু না । নামিদামি কলেজে ভর্তি হলেই যে তুমি পরবর্তীতে ভালো একটা রেজাল্ট করতে পারবে বেপারটা কিন্তু মোটেও সেরকম কিছু না । আমরা আমাদের চোখের  সামনে এরকম অসংখ্য উদাহরন দেখতে পাই প্রতিনিয়ত ।

তোমার জীবনটা তোমার কাছে তোমার পরিবারের কাছে অনেক বড় । আজকের ছোট একটা ফলাফল করার কারনে তুমি হয়ত ভীষণ হতাশ হয়ে পড়ছো । হতাশা কিন্তু তোমাকে কখোনোই ভালো একটা জায়গায় নিয়ে যাবে না । তোমার লাইফের  লক্ষ্য যদি থাকে এসএসসি পরিক্ষায় ভালো করা তাহলেই তুমি তোমার জীবনের বড় লক্ষ্য থেকে পিছিয়ে পড়বে । এসএসসি পরিক্ষায় ভালো রেজাল্ট না করেও যে অনেকে অনেক বড় হয়েছেন তার প্রমানও কিন্তু নিতান্তই কম নয় । তোমার লাইফে এমন একটা সময় আসবে যখন কেউ তোমাকে জিজ্ঞেস করবে না তুমি কি ক্লাস ফাইভে বৃত্তি পেয়েছিলে কিংবা জেএসসি-তে জিপিএ-৫ পেয়েছিলে । তুমি একটা নরমাল কলেজে ভর্তি  হয়েও এইচএসসি তে ভালো একটা রেজাল্ট নিয়ে বের হতে পারো । এখন রেজেল্ট ভালো করবে না খারাপ করবে সেটা নির্ভর করছে তোমার উপর ।

তোমার নিজের মধ্যে যদি প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি থেকে থাকে , আর তুমি যদি খুব চেষ্টা-পরিশ্রম করতে পারো  তাহলে জেনে রেখো বিজয়ের শেষ হাসি তুমিই হাসবে । তাই এসএসসি-তে যারা আশানুরূপ রেজাল্ট করতে পারো নাই তারা কলেজে ভর্তি হয়ে রেগুলার বেসিসে পড়াশুনা শুরু করে দাও ।  নিজেকে ভিতরের পটেনশিয়াল-টাকে মজা-মাস্তি করে নষ্ট করে দিয়ো না । এখোনো অনেক পথ যাবার আছে বাকি ।

অনেকে মনে করে নতুন নতুন কলেজ এসেছি আগে একটু লাইফটাকে এঞ্জয় করে নেই কিছুদিন যাক তারপর পড়াশুনা শুরু করবো  । এভাবে আসলে হয় না ।  এইচএসসি-র সময়টা খুব কম । তাই ভালো  কিছু করতে হলে কলেজের প্রথম ক্লাস থেকেই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকতে হবে । কিছুদিন বন্ধুরা তোমাকে আতেল বলুক  ,  দিনদুনিয়ার সবকিছু বোঝার দরকার নেই তোমার এখন । তোমার ভরণপোষণ তো এখনো তোমার বাবা-মা করে থাকেন , তাহলে কেনো তোমার এতো দিন-দুনিয়া নিয়ে ভাবতে হবে ? কিছুদিন তুমি একটু নিজেকে নিয়ে ভাবো । নিজের পড়াশুনার পেছনে সময় দাও ।  মাত্র তো ২ টা বছর তারপর সব কিছু অনেক ভালো ভাবে যাবে তোমার ।

কখোনোই নিজের তরীর হাল ছেড়ে দেয়া যাবে না ।  একটু হাল্কা করে ধরলেই তুমি পিছিয়ে পরবে অন্য কারো কাছ এই পৃথিবীতে কেউ কাউকে  কিছু দিয়ে দেয় নি  , যার যা কিছু করা দরকার সেগুলো এখাঙ্কার মানুষ নিয়ে থেকে করে নিয়েছে । ২ বছর পর দেখবে তোমার জীবন আনন্দে ভরে উঠেছে । আর সব-সময় হনেস্ট থাকতে চেষ্টা করবে ।  সৎ মানুষের পক্ষে অবশ্যই ভালো  কিছু হয় এটা তোমার বিশ্বাস করতে হবে । আমাদের এই দেশটাকে আস্তে আস্তে এভাবেই এগিয়ে নিতে হবে সাম্নের পথে  ।  সবার উজ্জল এবং সাফল্যমণ্ডিত ভবিষ্যৎ কামনা করছি ।  সামনে হয়ত অন্য কোনো টপিক নিয়ে লিখবো । 

সে পর্যন্ত ভালো থাকুন , ভালো রাখুন । ধন্যবাদ সবাইকে :-)